তালাকপ্রাপ্ত স্ত্রী ও সন্তানদের বিরুদ্ধে অভিযোগ

জোর করে সম্পত্তি লিখে নেয়ার আশঙ্কায় সংবাদ সম্মেলন

এখন সময়: মঙ্গলবার, ২১ মে , ২০২৪, ০৬:৩৩:৪৪ এম

 

 

নিজস্ব প্রতিবেদক: জোর করে সম্পত্তি লিখে নেয়ার আশঙ্কায় প্রেসক্লাব যশোরে সংবাদ সম্মেলন করেছেন ফজলুল হক নামে এক ব্যক্তি। তিনি যশোরের ঝিকরগাছা উপজেলার মোবারকপুর গ্রামের পূর্ব মাঠপাড়ার বাসিন্দা। তালাকপ্রাপ্ত স্ত্রী, এক মেয়ে ও ছেলে ধরে নিয়ে গিয়ে সম্পত্তি লিখে নেবে বলে আশঙ্কা করছেন তিনি। বৃহস্পতিবার প্রেসক্লাব যশোরের শহিদ সাংবাদিক আরএম সাইফুল আলম মুকুল অডিটোরিয়ামে অনুষ্ঠিত একটি সংবাদ সম্মেলনে তিনি এমন অভিযোগ করেন।

লিখিত বক্তব্যে ওই ব্যক্তি বলেন, পারিবারিক ভাবে তিনি সম্পদশালী। দীর্ঘদিন ঢাকার একটি চক্ষু হাসপাতালে চাকরি করেছেন। তার তিনটি সন্তান। বড় মেয়ে ফারহানা ফেরদৌস বৃষ্টি, ছেলে একতাদুল হক রিয়াদ ও সাবেক স্ত্রী গুলশান আরা ইতি আমার কোটি টাকার সম্পত্তি দখল করে নিয়েছে।  পারিবারিক বিরোধ চরমে উঠলে ২০১২ সালে স্ত্রী গুলশান আরা ইতিকে তালাক দিতে বাধ্য হই। তবে প্রাণনাশের আশঙ্কায় পুনরায় ইতিকে বিয়ে করে সংসারে ফিরিয়ে আনতে বাধ্য হই। বড় মেয়ে, ছেলে ও সাবেক স্ত্রী সব জমিজমা লিখে দিতে ক্রমাগত চাপ দিচ্ছে। কিন্তু সম্পত্তি দিতে না চাওয়ায় আমাকে পাগল বলে মানসিক হাসপাতালে নিয়ে রেখে দেয়ার চেষ্টা করছে তারা। ষড়যন্ত্র থেকে বাঁচতে ২০২০ সালে আবারও স্ত্রী ইতিকে তালাক দিই।

তিনি বলেন, আমাকে পাবনা মানসিক হাসপাতালে ভর্তি করতে না পেরে স্ত্রী ও ছেলে-মেয়ে ক্ষিপ্ত হয়। তারা আমাকে খুন ও গুমের ষঢ়যন্ত্র করছে। নিরুপায় হয়ে ছোট মেয়ে জান্নাতুল ফেরদৌসের কাছে আশ্রয়  নিয়েছি।  তারা এখন ছোট মেয়েকে নানাভাবে হয়রানি করছে। ফলে জীবনের নিরাপত্তাহীনতায় ভুগছি আমি ও ছোট মেয়ে। এ ব্যাপারে ঝিকরগাছা থানা পুলিশের কাছে অভিযোগ দিয়েও কোনো লাভ হয়নি। তাই জীবনের নিরাপত্তার জন্য প্রশাসনের সহযোগিতা চাইছি।

সংবাদ সম্মেলনে তার সঙ্গে ছিলেন আত্মীয় ইমরান হোসেন সাজু।