সাংবাদিকদের সাথে মতবিনিময়ে সিইও মাসুদুর

যশোর আইটি পার্ক হোটেল এন্ড রিসোর্টে সেবার মান উন্নয়ন করা হয়েছে

এখন সময়: শুক্রবার, ২১ জুন , ২০২৪, ১১:০৬:৫৫ পিএম

নিজস্ব প্রতিবেদক : খান প্রোপার্টিজ গ্রুপ যুক্তরাষ্ট্রভিত্তিক একটি আন্তর্জাতিক প্রতিষ্ঠান। এ প্রতিষ্ঠানের মাধ্যমে যশোর আইটি পার্ক হোটেল এন্ড রিসোর্টে বিভিন্ন পরিবর্তন, পরিবর্ধন ও পরিমার্জনের মাধ্যমে বিভিন্ন সেবার উন্নয়ন করেছে। পাশাপাশি বিভিন্ন সেবা নতুন করে সংযুক্ত করেছে।
শনিবার হোটেলের মিলনায়তন কক্ষে সাংবাদিকদের সাথে মতবিনিময় সভায় খান প্রোপার্টিজ গ্রুপের প্রতিষ্ঠাতা ও সিইও মাসুদুর খান বিষয়টি তুলে ধরেন।
তিনি জানান, তার নেতৃত্বে তার টিমের দীর্ঘ এক মাসের কঠোর পরিশ্রমের মাধ্যমে নতুন রুপ দিয়েছেন ।  
তিনি বলেন, ২৪ ঘণ্টা কাস্টমার সার্ভিস, রেস্টুরেন্ট সেবা, লবি, হেলথ ক্লাব, গিফট শপ, কফি সপ, ফটো গ্যালারি, বিজনেস সেন্টার, নামাজের ঘর, গেম জোন, কিড জোন, সু-বিশাল কনফারেন্স হল, পুরুষদের জন্য সেলুন, জিমসহ আরও অনেক সেবা রয়েছে এখানে।
এছাড়াও সম্পূর্ণ হোটেলটির নতুন করে ইন্টেরিয়র ডিজাইন করা হয়েছে। এসময় সাংবাদিকদের বিভিন্ন প্রশ্নের উত্তর দেন মাসুদুর খান। এসময় তিনি বলেন, বিদেশিদের আকৃষ্ট করতে যশোরের শেখ হাসিনা সফটওয়্যার পার্কে চালু করা হয়েছে হোটেল এন্ড রিসোর্ট।
খান প্রোপাটিজ গ্রুপের সিইও মাসুদুর বলেন, পদ্মা সেতু চালু হওয়ায় যশোরের সাথে দেশের যোগাযোগ ব্যবস্থা অভূত উন্নতি হয়েছে। দেশের প্রথম ডিজিটাল জেলায় এখন অতীতের চেয়ে দেশি-বিদেশি বিনিয়োগকারীরা আসবেন। শেখ হাসিনা সফটওয়্যার পার্কে আগে যেসব বিদেশি বিনিয়োগকারী আসতেন তারা শুধুমাত্র ডরমেটরিতে রাত্রিযাপনের সুবিধা পেতেন। এখন তিন তারকা মানের হোটেল ও ক্যাফেটেরিয়া করা হয়েছে। পার্কের অভ্যন্তরের লেকটিকেও রিসোর্টের উপযোগী করে গড়ে তোলা হয়েছে। মিটিং, আবাসন, ঘোরাঘুরি, নিরাপত্তা, বিনোদন সব সুবিধা পাবেন। তথ্যপ্রযুক্তি খাতের মানুষের পদচারণায় মুখরিত থাকবে। বিদেশিদের নজরে আনতে ‘যশোর আইটি পার্ক হোটেল এন্ড রিসোর্ট’ করা হয়েছে।
আবেদনের পরিপ্রেক্ষিতে রিসোর্টের পরামর্শক হিসেবে খান প্রোপার্টিজ গ্রুপকে ১০ বছরের জন্য দায়িত্ব দিয়েছে টেকসিটি বাংলাদেশ লিমিটেড। রিসোর্টটিতে আন্তর্জাতিক মানের হোটেলের সেবা রয়েছে দাবি করে খান প্রোপার্টিজ গ্রুপের প্রতিষ্ঠাতা ও প্রধান নির্বাহী মাসুদুর খান বলেন, তারা রিসোর্টের বিপণন ও পরিচালনা সংক্রান্ত বিষয়ে পরামর্শকের কাজ করবেন। শেখ হাসিনা সফটওয়্যার টেকনোলজি পার্কে ডরমিটরি নির্মাণ করা হয়েছিল বিনিয়োগকারী, বিনিয়োগকারী প্রতিষ্ঠানের কর্মী ও সম্মেলনে অংশ নেওয়া ব্যক্তিদের আবাসন সুবিধার জন্য। সেটাকে রিসোর্টে পরিণত করার বিষয়ে তিনি বলেন, এত দিন তারা প্রাথমিক পর্যায়ে এমটিবি ভবনে বিনিয়োগকারীদের জায়গা বরাদ্দ দেওয়া নিয়ে ব্যস্ত ছিলেন।
এখন হোটেল ব্যবস্থাপনায় নজর দিয়েছেন। লাইফস্টাইল ও বুটিক রিসোর্ট করলে সফটওয়্যার পার্কের পরিবেশ ও উদ্দেশ্য ব্যাহত হবে না বলে মনে করেন তারা। ডরমেটরি নাম শুনলে কেউ আসতে চাইবে না। এ ছাড়া এটা ঠিকমতো ব্যবস্থাপনা হচ্ছিল না। বিদেশি বিনিয়োগকারীদের দৃষ্টি আকর্ষণের জন্য ডরমিটরিকে আধুনিক করা হচ্ছে।
মতবিনিময় শেষে সাংবাদিকদের হোটেলটির বিভিন্ন কক্ষ এবং সেবাগুলো ঘুরে ঘুরে দেখানো হয়।
গত ২৬ জানুয়ারি যশোরের নাজির শংকরপুর এলাকায় শেখ হাসিনা সফটওয়্যার টেকনোলজি পার্কে আনুষ্ঠানিকভাবে পথচলা শুরু করে দেশের প্রথম লাইফস্টাইল ও বুটিক রিসোর্ট ‘যশোর আইটি পার্ক হোটেল’।