‘গ্রাম্য মাজার সংস্কৃতির আগ্রাসন’

অষ্টমদিনে নাটক ‘লালসালু’ মঞ্চস্থ

এখন সময়: বুধবার, ১ ফেব্রুয়ারি , ২০২৩ ০৯:০১:১৪ am

 

নিজস্ব প্রতিবেদক : যশোর জেলা শিল্পকলা একাডেমি মিলনায়তনে থিয়েটার ক্যানভাস আয়োজিত আন্তর্জাতিক নাট্য উৎসবের অষ্টমদিন বৃস্পতিবার   মঞ্চস্থ হয় নাটক  ‘লালসালু। সৈয়দ ওয়ালিউল্লাহর লালসালু উপন্যাস অবলম্বনে এই নাটক। কৌশিকর চট্টোপাধ্যায় রচিত এবং কামরুল হাসান রিপন নির্দেশিত উৎসব আয়োজক সংগঠন থিয়েটার ক্যানভাস প্রযোজিত ‘লালসালু দর্শকদের মুগ্ধ করেছে। অন্যদিনে তুলনায় মিলনায়তনে দর্শকের উপস্থিতিও ছিল বেশী।

লালসালু একটা সামাজিক সমস্যামূলক  নাটক, এর কাহিনী হল যুগ যুগ ধরে শেখর গাড়া কুসংস্কার ও অন্ধ বিশ্বাসের সঙ্গে ধর্মবিশ্বাসকে কাজে লাগিয়ে কেন্দ্রীয় চরিত্র মজিদের প্রতারণার জাল বিস্তার এর মাধ্যমে সে কিভাবে সমাজের কর্তাব্যক্তি হয়ে ওঠে সেই কাহিনী ফুটে উঠেছে এই নাটকে। তার এই সর্বগ্রাসী আত্মচেতনায় সে সঙ্গী করে গ্রামের মাতব্বরকেও। গ্রামে যাতে সুষ্ঠু শিক্ষার প্রসার ঘটাতে না পারে তাই শিক্ষিত যুবক আক্কাসের স্কুল বানানোর প্রয়াস সে কৌশলের দূর করে। এভাবে নিজের অস্তিত্বকে টিকিয়ে রাখার জন্য সে কুসংস্কার, সততা ও অন্ধবিশ্বাসের আশ্রয় নেয়। এভাবে কাহিনীর শেষ দিকে দ্বিতীয় স্ত্রী জামিলা দীপ্ত চেতনায় মজিদ তার আত্মনিয়ন্ত্রণের জায়গাটি খুঁজে পায় এবং অনুশোচনায় জর্জরিত হলেও গড়ে তোলে তার মিথ্যার সাম্রাজ্য। এই নাটকে গ্রাম্য মাজার সংস্কৃতির আগ্রাসনকে গভীর চেতনায় ফুটিয়ে তোলা হয়েছে।

নাটকের বিভিন্ন চরিত্রে অভিনয় করেছেন আবদুল আফফান ভিক্টর, কামরুল হাসান রিপন, জাহাঙ্গীর হোসেন খোকন, শফিকুল আলম পারভেজ, রাকিব উদ্দৌলা শুভ, সোহানুর রহমান সোহাগ, অনুরাগ, তুলি, নিপা, আনিকা ,কলি সাজিম, শুদ্ধ ,ঊর্বশী, রোহিত, অর্পিতা সাহা,রিদ্ধিক, অভি, অথৈ, মৌমিতা, সূচি ও অরণ্য।