অভয়নগরে ভৈরব নদে কুমির : সর্তক থাকার নির্দেশ

এখন সময়: সোমবার, ৩০ জানুয়ারি , ২০২৩ ০১:১১:২৯ am

অভয়নগর (যশোর) প্রতিনিধি: অভয়নগরে ভৈরব নদে কুমিরের দেখা মেলেছে। যে কারণে দুই পাড়ের মানুষের মাঝে আতঙ্কের সৃষ্টি তৈরি হয়েছে। তাই উপজেলা প্রাণিসম্পদ কর্মকর্তা সবাইকে সতর্ক থাকার নির্দেশ দিয়েছেন।

জানা গেছে, ভৈরব নদের যশোরের অভয়নগর উপজেলা অংশে নওয়াপাড়া নদী বন্দরে স্থানীয়রা কুমির দেখতে পেয়েছেন। বৃহস্পতিবার বেলা ১১টার সময় লোকজন কুমিরটি দেখতে পান। উপজেলা প্রাণিসম্পদ কর্মকর্তা মো. আবুজার সিদ্দিকী ঘটনার সত্যতা স্বীকার করে বলেছেন, মঙ্গলবারও স্থানীয়রা একই স্থানে কুমিরের দেখতে পান।

স্থানীয়রা জানায়, উপজেলার উপর দিয়ে প্রবাহিত এ নদে নিকট অতীতে কুমির দেখা গেছে বলে শোনা যায়নি। অথচ সেই নদে আজ হঠাৎ কুমিরের দেখা পেয়েছেন। নদের তীরে রৌদ্রস্নান করতে দেখা গেছে কুমিরটিকে।

নওয়াপাড়া ট্রেডার্সের সাব্বির হোসেন বলেছেন, এই নদে অতীতে কেউ কুমির দেখেননি। এই প্রথম কুমির দেখা গেলো। নদের তীরে উঠে মাঝারি ধরনের কুমিরটি রোদ পোহাচ্ছিল। কুমিরটি দেখতে নদের তীরের গ্রাম মধ্যপুরে আশপাশের এলাকার মানুষ ভিড় করেন।

আব্দুন রশিদ বলেন, মানুষের ভিড়ে কুমিরটি আরাম করে রোদ পোহাতে পারেনি। ছবি তোলার জন্য মানুষ ভীড় করতে থাকে।  মধ্যপুর গ্রামের হাবিবা খাতুন জানান, ভৈরব নদে ভাটা ছিল। নদের চরে উঠে কুমিরটি রোদ পোহাতে থাকে। কুমিরটি সাড়ে চার থেকে পাঁচ ফুট লম্বা। প্রচুর মানুষের সমাগম করায় বিরক্ত হয়ে কুমিরটি পানিতে নেমে যায়।

এ বিষয়টি নিয়ে উপজেলা প্রাণিসম্পদ কর্মকর্তা মো. আবুজার সিদ্দিকী বলেন, স্থানীয়রা আমাকে ফোন করে জানান, নদীর তীরে তারা কুমির দেখতে পেয়েছেন। তাতে কুমিরটিকে বাচ্চা মনে হয়েছে। কেননা এটির দৈর্ঘ্য ৩ থেকে সাড়ে চার ফিট। পূর্ণবয়স্ক কুমিরের দৈর্ঘ্য ১২ থেকে ১৪ ফিট হয়। তিনি আরো বলেন, শীতকালে কুমির নদী তীরে রোদ পোহাতে আসে। ধারণা করছি সুন্দরবনের মিঠা পানির এই কুমির খাদ্যের কারণে রূপসা বা ভৈরবে এসেছে। এই সময়ে আমাদের সবাইকে অবশ্যই সাবধানতা অবলম্বন করে নদীতে নামা উচিত। কারণ কুমির দেখা গেছে। এ নদী বন্দরে শ্রমিকরা গোসল করতে নদীতে নামে তাই সর্তক থাকার নির্দেশ প্রদান করছি।