জেষ্ঠ্য সাংবাদিক মোস্তফা রুহুল কুদ্দুসের ইন্তেকাল, শোক

এখন সময়: শুক্রবার, ১৪ জুন , ২০২৪, ০৫:৪৪:০১ এম

 

নিজস্ব প্রতিবেদক: দৈনিক লোকসমাজ পত্রিকার প্রধান প্রতিবেদক, প্রেসক্লাব যশোরের সদস্য জেষ্ঠ্য সাংবাদিক মোস্তফা রুহুল কুদ্দুস ইন্তেকাল করেছেন। ইন্না লিল্লাহি ওয়া ইন্না ইলাইহি রাজিউন।

মঙ্গলবার দুপুর সাড়ে ১২ টার দিকে শহরের বারান্দী মোল্যাপাড়া বাঁশতলা এলাকায় নিজ বাসভবনে হৃদরোগে আক্রান্ত হন। দ্রুত তাকে যশোর ২৫০ শয্যা জেনারেল হাসপাতালে নেওয়া হলে কর্তব্যরত চিকিৎসক মৃত ঘোষণা করেন।

এদিন বাদমাগরিব বারান্দীমোল্যাপাড়া বাঁশতলাস্থ ঈদগাহে নামাজে জানাজা শেষে পাশেই কবরস্থানে তার দাফন সম্পন্ন হয়।

মৃত্যুকালে তার বয়স হয়েছিল ৬৫ বছর। তিনি স্ত্রী, এক ছেলে ও তিন মেয়েসহ অসংখ্য গুণগ্রাহী রেখে গেছেন। যশোরের মণিরামপুর উপজেলার খেদাপাড়া ইউনিয়নের গোয়ালদহ গ্রামের মৃত শামছুর রহমানের ছেলে মোস্তফা রুহুল কুদ্দুস পেশাগত কারণে যশোরে আসেন। এরপর তিনি শহরের বারান্দী মোল্যাপাড়া বাঁশতলা এলাকায় জমি কিনে সেখানে বাড়ি নির্মাণ করে বসবাস করতে থাকেন। ৪০ বছরেরও বেশি সময় ধরে তিনি ওই এলাকায় স্ত্রী-সন্তান নিয়ে স্থায়ীভাবে বসবাস করে আসছেন।

সাংবাদিক, সংগঠক, লেখক ও নাট্যকার হিসেবে খ্যাতিমান ছিলেন মোস্তফা রুহুল কুদ্দুস। তিনি সাংবাদিকদের শীর্ষ সংগঠন বাংলাদেশ ফেডারেল সাংবাদিক ইউনিয়ন বিএফইউজের কাউন্সিলর ছিলেন। দীর্ঘ কর্মজীবনে তিনি একাধিকবার প্রেসক্লাব যশোর ও সাংবাদিক ইউনিয়ন যশোরের বিভিন্ন গুরুত্বপূর্ণ পদে দায়িত্ব পালন করেছেন। সর্বশেষ তিনি সাংবাদিক ইউনিয়ন যশোরের কার্যনির্বাহী সদস্য ও বিএফইউজের কাউন্সিলর ছিলেন।

৮০’র দশকে যশোরের পূরবী পত্রিকার মাধ্যমে তার সাংবাদিকতার পেশা জীবনের সূচনা হয়। এরপর খুলনা থেকে প্রকাশিত দৈনিক পূর্বাঞ্চলের যশোর অফিসের দীর্ঘদিন দায়িত্বে ছিলেন। দৈনিক রানারেও সাংবাদিকতা করেন কিছুদিন। দৈনিক লোকসমাজ পত্রিকার প্রকাশনালগ্ন থেকে তিনি এর সাথে সম্পৃক্ত হন এবং মৃত্যুকাল পর্যন্ত পত্রিকার চিফ রিপোর্টার ছিলেন। একই সাথে তিনি দৈনিক সংগ্রাম এর যশোর অফিস প্রধান হিসেবে দায়িত্বরত ছিলেন।

সাহিত্য সংস্কৃতির অঙ্গনে সরব পদচারনা ছিল মোস্তফা রুহুল কুদ্দুসের। অর্ধশত বইয়ের রচয়িতা ছিলেন তিনি। ছিলেন নাট্যকার ও শিশু সাহিত্যিক। শিশুদের ইসলামী মূল্যবোধ নিয়ে বেড়ে ওঠার লক্ষ্যে কলম সচল ছিল তার।

মোস্তফা রুহুল কুদ্দুসের মৃত্যুর খবর শুনে অসংখ্য সাংবাদিক হাসপাতালে ছুটে আসেন। সমবেদনা জানাতে বারান্দী মোল্যাপাড়ার বাসভবনে যান দৈনিক লোকসমাজের সম্পাদক অধ্যাপক নার্গিস বেগম। এসময় তিনি দীর্ঘ সময় শোকাহত পরিবারের পাশে সময় কাটান। মৃত্যুর খবর পেয়ে ঢাকা থেকে যশোরে  আসেন লোকসমাজের প্রকাশক শান্তনু ইসলাম সুমিত। তিনি মরহুমের দাফন কাজে দোয়ায় শরিক হন। রাতে তিনি মরহুমের বাসভবনে গিয়ে শোকাহত পরিবারের প্রতি সমবেদনা জানান।

বিকেলে শেষ শ্রদ্ধার জন্য মোস্তফা রুহুল কুদ্দুসের মরদেহ নিয়ে আসা হয় প্রেসক্লাব যশোরে। এ সময় সেখানে প্রেসক্লাব যশোরের সভাপতি জাহিদ হাসান টুকুন, সাবেক সভাপতি একরাম উদ-দ্দৌলাহ, সাধারণ সম্পাদক এসএম তৌহিদুর রহমান, বিএফইউজের একাংশের সহকারি মহাসচিব এহতেশামুল হক শাওনসহ যশোরের সাংবাদিকদের সংগঠনের নেতৃবৃন্দ উপস্থিত ছিলেন। পরে মরহুমের বিদেহি আত্মার মাগফিরাত কামনায় দোয়া করা হয়।  

বাদমাগরিব বারান্দী মোল্যাপাড়া বাঁশতলাস্থ ঈদগাহে মরহুমের জানাজা অনুষ্ঠিত হয়। জানাজায় বিপুল সংখ্যক মুসল্লি অংশ নেন। উল্লেখযোগ্যদের মধ্যে ছিলেন জেলা বিএনপির সদস্য সচিব অ্যাডভোকেট সৈয়দ সাবেরুল হক সাবু, জামায়াতে ইসলামীর যশোর শহর সাংগঠনিক শাখার আমীর অধ্যাপক গোলাম রসুল, সেক্রেটারি অধ্যাপক গোলাম কুদ্দুস, পশ্চিম শাখার আমীর মাওলানা হাবিবুর রহমান, সেক্রেটারি শিহাবুদ্দিন, পূর্ব শাখার আমীর মাস্টার নুরুন্নবী, সেক্রেটারি আবু জাফর, প্রেস ক্লাব যশোরের সভাপতি জাহিদ হাসান টুকুন, সাধারণ সম্পাদক এসএম তৌহিদুর রহমান, দৈনিক লোকসমাজের ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক আনোয়ারুল কবীর নান্টু, সাংবাদিক ইউনিয়ন যশোরের সভাপতি মো. আকরামুজ্জামান, সাধারণ এসএম সম্পাদক ফরহাদসহ বিভিন্ন শ্রেণিপেশার বিপুল সংখ্যক মানুষ। জানাজার নামাজ পড়ান মরহুম মোস্তফা রুহুল কুদ্দুসের মেজো ভাই মো. নূর ইসলাম। জানাজাপূর্ব মরহুমের একমাত্র ছেলে শাহরিয়ার সবার কাছে তার পিতার মাগফিরাত কামনায় দোয়া কামনা করেন। পরে পাশেই পূর্ব বারান্দী মোল্যাপাড়া কেন্দ্রীয় কবরস্থানে তার দাফন সম্পন্ন হয়। সিনিয়র সাংবাদিক মোস্তফা রুহুল কুদ্দুসের মৃত্যুতে গভীর শোক প্রকাশ, মাগফিরাত কামনা এবং শোকসন্তপ্ত পরিবারের প্রতি সমবেদনা জানিয়েছেন বিএফইউজের একাংশের সভাপতি রুহুল আমিন গাজী, মহাসচিব কাদের গনি চৌধুরী। সমবেদনা জানিয়ে শোক জানিয়েছেন প্রেসক্লাব যশোরের সভাপতি জাহিদ হাসান টুকুন, সাধারণ সম্পাদক এসএম তৌহিদুর রহমান, যশোর সাংবাদিক ইউনিয়নের (জেইউজে) সভাপতি মনোতোষ বসু, সাধারণ সম্পাদক এইচ আর তুহিন, সাংবাদিক ইউনিয়ন যশোরের সভাপতি মো. আকরামুজ্জামান, সাধারণ এসএম সম্পাদক ফরহাদ, মেট্রোপলিটন সাংবাদিক ইউনিয়ন খুলনা এমইউজের সভাপতি মো. আনিসুজ্জামান এবং সাধারণ সম্পাদক আবুল হাসান হিমালয়, বাংলাদেশ ফটো জার্নালিস্ট অ্যাসোসিয়েশনের যশোর জেলা শাখার সভাপতি গোপীনাথ দাস ও সাধারণ সম্পাদক এমআর খান মিলন এবং সংগঠনের প্রতিষ্ঠাতা সভাপতি হানিফ ডাকুয়া, জেলা সাংবাদিক ইউনিয়নের সভাপতি শেখ দিনু আহমেদ, সাধারণ সম্পাদক দেওয়ান মোর্শেদ আলম, দৈনিক লোকসমাজ পরিবার।

অনুরুপ শোক জানিয়েছেন জামায়াতে ইসলামী যশোর শহর শাখার আমীর অধ্যাপক গোলাম রসুল ও সেক্রেটারি অধ্যাপক গোলাম কুদ্দুস। নেতৃবৃন্দ মরহুমের মাগফিরাত কামনা করেন।