সংবাদ সম্মেলন

যাতায়াতের পথ বন্ধের হুমকির অভিযোগ

এখন সময়: শুক্রবার, ২১ জুন , ২০২৪, ১১:০৪:০৯ পিএম

নিজস্ব প্রতিবেদক: যশোর শহরের রেলরোড প্রাইমারি স্কুলের পাশের বাসিন্দা শিখা রায়ের বাড়ির যাতায়াতের পথ বন্ধ করে দেয়ার হুমকি ও মামলা দিয়ে হয়রানি করছেন প্রতিবেশী আক্কাস আলী ও তার বোন সাবিহা খানম। প্রায় ১৫ বছর আগে রাস্তার উপর থাকা জাম গাছ কেটে নেয়ার কথা থাকলেও আজও তিনি না কেটে চলাচলের প্রতিবন্ধকতা করছেন। বৃহস্পতিবার প্রেসক্লাব যশোরে অনুষ্ঠিত সংবাদ সম্মেলনে এ অভিযোগ করে শিখা রায়ের পরিবারসহ প্রতিবেশীরা। এ সময় উপস্থিত ছিলেন, শিখা রায়,  তার মা সুমিত্রা রায়, জাকির হোসেন, আব্বাস আলী, মামুন হোসেন, মকছেদ বেপারি, সেলিম হাওলাদার প্রমুখ।

লিখিত বক্তব্যে শিখা রায় বলেন, দীর্ঘ বছর ধরে রেলরোড প্রাইমারি স্কুল পাড়ায় পৈত্রিক ভিটায় বসবাস করছি। আমার প্রতিবেশী আক্কাস আলী ও তার বোন সাবিহা খামন।  এক সময় আমি ও আশপাশের বাড়ির লোকজন স্কুলের মাঠের মধ্যে দিয়ে বাড়িতে যাতায়াত করতেন। পরবর্তীতে স্কুলের সীমানা প্রাচীর দেয়ায় আমার বাড়িতে যাতায়াতে অসুবিধার সৃষ্টি হয়। গলিপথের উপর থাকা একটি আক্কাস আলীর ছোট জাম গাছ চলাচলের বাধা হয়ে দাঁড়ায়। তখন স্থানীয় গণ্যমান ব্যক্তিবর্গ সকলের উপস্থিতিতে জাম গাছ কেটে ফেলার সিদ্ধান্ত দেন। আক্কাস আলী তখন জাম গাছ কেটে ফেলবে বলে অঙ্গীকার করলেও আজও গাছ কাটেননি। তখন জাম গাছ ছোট থাকায় রিকসা-ভ্যান চলাচলে বাধা সৃষ্টি হলেও হেটে চলাচল করা যেত। এখন জাম গাছ বড় হওয়ায় হেটে চলাচল করা যাচ্ছে না। ফলে গত ৫ মে স্থানীয় গণ্যমান্য ব্যক্তিদের বিষটি অবহিত করে চলাচলের বাধা দুর করতে জাম গাছ কেটে ফেলার সুপারিশ করা হয়। এতে আক্কাস আলী আমারও আমি যাদের কাছে বিচার চেয়েছি তাদের উপর চরম ভাবে ক্ষিপ্ত হয়েছে। বাড়ি ভাঙচুরের মিথ্যা ঘটনা সাজিয়ে থানায় অভিযোগ দিয়ে আবার পত্রিকায় প্রকাশ করিয়েছেন আক্কাস আলী। নানা ভাবে হুমকি দিচ্ছেন তিনি ও তার লোকজন। তিনি গলি রাস্তার উপর থাকা জাম গাছ অপসারণ করে চলাচলের সুব্যবস্থার দাবি জানিয়েছেন প্রশাসনের কাছে।