লাফিয়ে বাড়ছে পেঁয়াজের দাম তেল নিয়ে তেলেসমাতি

এখন সময়: রবিবার, ৩ মার্চ , ২০২৪, ০৭:৩৭:৫৪ পিএম

 

মুর্শিদুল আজিম হিরু : যশোরের বাজারে ভোজ্য তেলের দাম নিয়ে চলছে যথেচ্ছাচার। সরকার নির্ধারিত দামে সয়াবিন ও পাম তেল বিক্রি করছে না ব্যবসায়ীরা। তেলের ইচ্ছামাফিক দাম নিয়ে ক্রেতার পকেট কাটছেন। সরকারিভাবে তেলের দাম নির্ধারণে বিষয়টিকে বৃদ্ধাঙ্গুলি দেখাচ্ছেন তারা। যেন তেলের বাজার নিয়ন্ত্রহীণ হয়ে পড়েছে। বাজার কি সিন্ডিকেটের কবলে চলে গেল না কি এনিয়ে চলছে নানা গুঞ্জন। এদিকে, সপ্তাহের ব্যবধানে পেঁয়াজের দাম লাফিয়ে বেড়েছে ১৫ টাকা। চাল, ডাল, সবজি, আলু ও মরিচেরও উচ্চদাম।

বাজার ঘুরে জানা যায়,  সরকারের বেধে দেয়া দাম ১৭৬ টাকায় খোলা সয়াবিন তেল বিক্রি করছেন না দোকানীরা। প্রতি কেজিতে ১৯ টাকা বেশি নিয়ে ১৯৫ টাকায় বিক্রি করছে। সরকারিভাবে পাম তেলের দাম নির্ধারন হয়েছে ১৩৫ টাকা। কিন্তু বিক্রি করে কেজি প্রতি ১৫৫ টাকা। শুধুমাত্র বোতলজাত পরিশোধিত সয়াবিন তেল প্রতি লিটার ১৯৯ টাকায় বিক্রি হচ্ছে।  পেঁয়াজের দাম কেজিতে ১৫ টাকা বৃদ্ধি পেয়েছে বিক্রি হচ্ছে ৬৫ টাকায়। বাজারে বর্তমানে সবচেয়ে দাম বেশি রসুনের। একেক কেজি রসুন ২০০টাকা কেজি দামে বিক্রি চলছে। মরিচের দাম এখন অনেক। একেক কেজি মরিচ ১০০ থেকে ১২০ টাকা। আলুর দাম এখনো কমেনি। প্রতি কেজি আলু ৩৫ টাকা।

বাজারে সবজির এখন আগুন দাম। প্রতি কেজি বেগুন ৫০ থেকে ৬০ টাকা। টমোটো ৪০ টাক কেজি। শশার কেজি ৪০ টাকা। বরবটি ৬০ টাকা কেজি।  ১২০ টাকা কেজি সজনে ডাটা। প্রতি কেজি পটল ৫০ টাকা। ৩০ টাকা থেকে ৪০ টাকা কেজি মিষ্টি কুমড়া। প্রতি কেজি ঝিঙে ও কুশি ৫০ টাকা। ৮০ টাকা কেজি উচ্ছে। ৬০ টাকা কেজি বিক্রি হয় ঢেড়স। প্রতি কেজি পুই শাক ৩০ টাকা।

বাজারে মাছ মাংশের দাম কমেনি। প্রতি কেজি বড় ইলিশ মাছ ১২ শ’ থেকে ১৫ শ’ টাকা কেজি। সাড়ে ৭শ’ টাকা থেকে ৮শ’ টাকা কেজি মাঝারি সাইজের ইলিশ। ১৩০ টাকা থেকে ১৬০ টাকা কেজি তেলাপিয়া। কেজি রুই-কাতলা মাছ ২২০ থেকে ৩২০ টাকা কেজি। ২০০ টাকা থেকে ২৫০ টাকা কেজি মৃগেল মাছ। প্রতি কেজি চিলবার্কাপ মাছ বিক্রি হয় ১৪০ টাকা থেকে ১৮০ টাকা কেজি। ২৮০ টাকা থেকে ৪০০ টাকা কেজি বিক্রি হয় চাষের শিং মাছ। প্রতি কেজি কই মাছ বিক্রি হচ্ছে ২০০ টাকা থেকে ২২০ টাকায়।

প্রতি কেজি ব্রয়লার মুরিগী ২২০ টাকা থেকে ২৩০ টাকা। ৩৪০ টাকা কেজি দাম সোনালী, লেয়ার ও কক মুরগির। সাড়ে ৫শ’ টাকা কেজি দেশি মুরগি। প্রতি কেজি গরুর মাংস সাড়ে ৭শ’ টাকা। ১০০০ টাকা থেকে সাড়ে ১১০০ টাকা কেজি খাসির মাংসের দাম।

বাজারে ডালের দাম বাড়েনি। প্রতি কেজি দেশি মসুর ডাল বিক্রি ১শ’৪০ টাকা। ১শ’ টাকা কেজি আমদানিকৃত মস্রু ডাল। প্রতি কেজি ছোলার ডাল বিক্রি হয় ৯০ টাকা। ৬০ টাকা থেকে ৬৫ টাকা কেজি বিক্রি হয় বুটের ডাল। প্রতি কেজি মুগের ডাল বিক্রি হয় ১শ’ টাকা থেকে ১শ’৩০ টাকা। ১৪০ টাকা কেজি বিক্রি হয় কলাইয়ের ডাল।