মোংলায় বালু উত্তোলনের সময় গ্যাসের সন্ধান

এখন সময়: শনিবার, ২০ আগস্ট , ২০২২ ০১:৫৭:৪২ am

মো. এরশাদ হোসেন রনি, মোংলা : বাগেরহাটের মোংলায় মৎস্য ঘেরে বালি উঠানোর সময় ভূগর্ভস্থ গ্যাসের সন্ধান মিলেছে। গ্যাসের সঙ্গে তীব্র বেগে বালি ও পানি মিশে প্রায় ১৫০ ফুট উপরে ছড়িয়ে পড়ে। এরপরই গ্যাস ওঠার বিষয়টি বুঝতে পারেন প্রত্যক্ষদর্শীরা।

ঘটনা জানাজানি হলে গ্যাস বের হওয়ার দৃশ্যটি দেখতে ভিড় জমাচ্ছেন আশপাশের এলাকা থেকে সাধারণ মানুষ। উপজেলার মিঠাখালি ইউনিয়নের মধ্যপাড়া এলাকার ১ নম্বর ওয়ার্ডের মৃত আলহাজ আলতাফ হোসেনের ছেলে দেলোয়ার হোসেন (৩০) এর মৎস্য ঘেরে এ ঘটনা ঘটে।

জমির মালিক দেলোয়ার হোসেন জানান, বৃহস্পতিবার সকালে ৩ বিঘা জমিতে বালি কাটার জন্য মৎস্য ঘেরে পাইপ বসানোর সময় পাইপ দিয়ে গ্যাস ওঠা শুরু হয়। এ সময় পাইপ বসানোর সময় হঠাৎ ৫০ ফুট উচ্চতায় গ্যাস, বালু ও পানি উপরের দিকে উঠতে থাকে। তাৎক্ষণিকভাবে একটি ড্রাম দিয়ে পাইপ বসানো হয়। সেই পাইপ লাইন থেকে আমরা এখন রান্নার কাজ করতেছি।

এর আগে প্রায় ৫/৬ বছর আগে এই মৎস ঘের থেকে ড্রেজার মেশিন দিয়ে বালু উঠানোর জন্য পাইপ বসালে তখন গ্যাসের সন্ধান পেলে বালি উঠানোর কাজ বন্ধ করে দেই আমরা। এখন দেখি সেখান থেকে আবারও গ্যাস উঠছে।

গ্যাস দেখতে আসা দক্ষিণ চাঁদপাই এর উজ্জল মল্লিক বলেন, আমরা শুনেছি এই এলাকার একটি মৎস ঘের থেকে গ্যাস উঠছে। পরিবার নিয়ে দেখতে আসলাম। এসে সত্যিই দেখি গ্যাস দিয়ে তারা রান্না বান্না করতেছে।

স্থানীয় ইউপি সদস্য উকিল উদ্দিন ইজারাদার বলেন, আজ থেকে প্রায় ৫/৬ বছর আগে এখান থেকে এই গ্যাস ওঠে। কিন্তু কেউ কখনো মুল্যায়ন করেনি। কি পরিমান গ্যাস আছে তা আমরা বলতে পারছিনা। দ্রæত সরকারের ব্যবস্থা নেয়া প্রয়োজন। না হলে যে কোনো সময় বড় ধরনের ক্ষতি হতে পারে।

তেল, গ্যাস, খনিজ সম্পদ রক্ষা জাতীয় কমিটির মোংলা শাখার আহŸায়ক নূর আলম শেখ জাগো নিউজকে বলেন, মাটির নীচের প্রাকৃতিক সম্পদের মালিক জনগণ। জনগণের গ্যাস সম্পদ উত্তোলন-সংরক্ষণ ও বিতরণ করে দেশের সমৃদ্ধি এবং উন্নয়নের কাজে লাগাতে হবে।

বাগেরহাট জেলার মোংলা উপজেলার মিঠাখালি গ্রামে দেলোয়ারের চিংড়ি ঘের থেকে তীব্র বেগে গ্যাসের উদগীরণ হচ্ছে। স্থানীয় মানুষ লোকায়ত জ্ঞানকে কাজে লাগিয়ে পাইপ দিয়ে গ্যাসের চুলার সাথে সংযোগ ঘটিয়ে রান্নাবান্না করছে।

মোংলা থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা ওসি মোহাম্মদ মনিরুল ইসলাম  বলেন, বিষয়টি আমার জানা নেই, আপনার মাধ্যমে জানতে পেরেছি। ঘটনাস্থলে পুলিশ পাঠানো হবে।

উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা কমলেশ মজুমদার  জানিয়েছেন, ঘটনা তিনি শুনেছেন, ঘটনাস্থল পরিদর্শন করে, বিষয়টি তিনি দেখবেন।