ই-পেপার ফটোগ্যালারি আর্কাইভ বুধবার, ২৭ অক্টোবর , ২০২১ ● ১২ কার্তিক ১৪২৮

১১ ভাইয়ের সাক্ষর জালিয়াতি দুই ভাইয়ের !

Published : Thursday 24-June-2021 22:16:45 pm
এখন সময়: বুধবার, ২৭ অক্টোবর , ২০২১ ২১:১৩:৫৪ pm

ঝিনাইদহ প্রতিনিধি: মৃত ব্যক্তিসহ ১১ ভাইয়ের সাক্ষর জালিয়াতি, জোরপূর্বক সীমানা পিলার উঠিয়ে জমি দখলের চেষ্টা এবং সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেসবুকে মিথ্যা অপপ্রচারের প্রতিবাদে সংবাদ সম্মেলন করেছেন ঝিনাইদহ সদর উপজেলার ধানহাড়িয়া গ্রামের মৃত আফছার উদ্দিন খাঁ এর ছেলে মহিউদ্দিন খাঁসহ তার ১১ ভাই। বৃহস্পতিবার বেলা সাড়ে ১১ টায় ঝিনাইদহ প্রেসক্লাব মিলনাতনে এ সংবাদ সম্মেলনে লিখিত বক্তব্য পাঠ করেন মহিউদ্দিন খাঁ।

লিখিত বক্তব্যে অভিযোগ করে বলেন, আমার পিতার ১৬০ নম্বর ধানহাড়িয়া মৌজায় আর এস চূড়ান্ত ৫২ নম্বর খতিয়ানে ২৮৪ দাগে ৯৬ শতক জমি ছিল। তার মধ্যে পিতার দেওয়া আমার সৎ ভাই আবু বক্কর ও আব্দুল মতলেব খাঁ এর নামে দলিলকৃত ৭৯ শতক জমি রয়েছে। বাকি ১৭ শতক জমি আমাদের ১১ ভাইয়ের নামে।

এরই মাঝে আমার সৎ ভাই আবু বক্কর ও আব্দুল মতলেব খাঁ একটি গ্যাস কোম্পানির কাছে আমাদের না জানিয়ে আমাদের নিজ নামীয় জমি ব্যবহার করে এবং আমাদের সাক্ষর জাল করে বন্টনকৃত ক্ষতি পূরণের অর্থ হাতিয়ে নেয়।

তিনি আরও বলেন, ১৯৮৪ সালে আমার ভাই আব্দুল কুদ্দুস খাঁ মারা যায় এবং আমার মৃত ভাইয়ের নাম নকল সাক্ষর করে ২০১৪ সালে। বাকি আমাদের ১০ ভাইয়ের সাক্ষর নকল করে একই সালে টাকা উত্তোলন করেছে।

এ ঘটনা পরবর্তীতে জানাজানি  হওয়ার পর ওই জালিয়াতির বিষয় আমরা সৎ ভাই আবু বক্কর ও আব্দুল মতলেব খাঁকে জানানোর পর তারা উক্ত বিষয়ে কোন কর্ণপাত করে না। পরে এ ঘটনায় ঝিনাইদহের আদালতে একটি মামলা দায়ের করি। যার মামলা নম্বর ৩০৩/২০।

মামলার সমন জারির হওয়ার পর স্থানীয় গণ্যমান্য ব্যক্তিবর্গের উপস্থিতিতে আপোস নামায় আমার সৎ ভাই আবু বক্কর ও আব্দুল মতলেব খাঁকে ৭৯ শতক জমি বুঝিয়ে দিয়ে বাকি ১৭ শতক জমিতে সীমানা পিলার পুতে দেওয়া হয়। কিন্তু এরই মাঝে চলতি বছরের ২৩ জুন তারিখে বেলা অনুমান বেলা ১১ টায় আমাদের মিমাংসাকৃত ১৭ শতক জমির পিলার জোরপূর্বক উপড়ে নিয়ে যায়। বিষয়টি জানার পর আমার ভাই খাইরুল ইসলাম বাদি হয়ে ঝিনাইদহ সদর থানায় একটি লিখিত অভিযোগ দায়ের করে।

এছাড়াও আমরা জানতে পারি, আমাদের খাঁ গোষ্টির সম্মানিত লোকদের নামে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম (ফেসবুক) এ অশ্লীল ভাষায় অপপ্রচার করে। আমার সৎ ভাই আব্দুল মতলেব, শের আলী খাঁ এবং মুরাদ আলী খাঁর ছেলে দেলোয়ার হোসেন দুলু, কামাল খাঁ ওরফে ফিটু, বিপুল খাঁ এবং তাদের ভাড়াটিয়া সন্ত্রাসী প্রকৃতির বেশ কয়েকজন ব্যক্তি দিয়ে সমাজে আমাদেরকে হেয় প্রতিপন্ন করেছে এবং মারপিট করার বিভিন্ন হুমকি ধামকি দিচ্ছে। বিষয়টি নিয়ে প্রশাসনের উর্দ্ধতন কর্তৃপক্ষের হস্তক্ষেপ কামনা করেন ভুক্তভোগি পরিবারটি।



আরও খবর