ই-পেপার ফটোগ্যালারি আর্কাইভ রবিবার, ১৭ অক্টোবর , ২০২১ ● ১ কার্তিক ১৪২৮

লোহাগড়ায় দুই পুলিশ কর্মকর্তাকে মারপিট

Published : Thursday 22-April-2021 21:59:06 pm
এখন সময়: রবিবার, ১৭ অক্টোবর , ২০২১ ০৫:৫৪:০৭ am

লোহাগড়া (নড়াইল) প্রতিনিধি : নড়াইলের লোহাগড়ার দিঘলিয়া ইউপির কুমড়ি গ্রামে দু‘পক্ষের সংঘর্ষ ঠেকাতে গিয়ে দুই পুলিশ কর্মকর্তাকে মারপিট করে অস্ত্র ছিনিয়ে নেয় দুবৃর্ত্তরা। পরে পুলিশ অভিযান চালিয়ে খোয়া যাওয়া অস্ত্র উদ্ধার করে। আহত দুই পুলিশ কর্মকর্তাকে লোহাগড়া হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে।

পুলিশ ও এলাকাবাসী সূত্রে জানা যায়, উপজেলার দিঘলিয়া ইউনিয়নের কুমড়ি গ্রামের টিকের ডাঙ্গায় গ্রাম্য আধিপত্য বিস্তার করাকে কেন্দ্র করে ওহিদুর সরদার গ্রুপের সাথে একই গ্রামের পঞ্চ পল্লির নেতা ফিরোজ মেম্বর গ্রুপের দীর্ঘদিন ধরে বিরোধ চলে আসছিল। এ বিরোধের জের ধরে বৃহস্পতিবার দুপুর ১ টার দিকে দু‘প্রুপের মধ্যে সংঘর্ষ হওয়ার চেষ্টা করে। খবর পেয়ে লোহাগড়া থানার এএসআই মীর আলমগীর ও এএসআই মিকাইল ঘটনাস্থলে পৌছায়ে দু‘পক্ষের সংঘর্ষ এড়ানোর চেষ্টা করে ও মীমাংসা করে দেবে বলে আশ্বাস দেয়। এক পর্যায়ে ওহিদুর সরদারের লোকজন টুকু কটা, রিপন সরদার, সনি সরদার, পলাশ সরদার, আহাদ, আজগর, সাজ্জাদ কটা, সাদ্দাম কটাসহ ৮/১০ দুর্বৃত্ত মীমাংসার প্রস্তাব প্রত্যাখ্যান করে এবং এএসআই মীর আলমগীর ও এএসআই মিকাইলকের ওপর হামলা চালিয়ে তাদেরকে বেধড়ক মারপিট করে। এ সময় ওই দুবৃর্ত্তরা এএসআই মীর আলমগীরের কাছে থাকা পিস্তল ছিনিয়ে নিয়ে পালিয়ে যায়। খবর পেয়ে নড়াইলের পুলিশ সুপার প্রবীর কুমার রায় ও লোহাগড়া থানার ওসি সৈয়দ আশিকুর রহমানের নেতৃত্বে একদল পুলিশ ঘটনাস্থলে পৌঁছে অভিযান চালিয়ে ছিনতাই হওয়া অস্ত্র উদ্ধার করে। আহত দুই পুলিশ কর্মকর্তাকে লোহাগড়া হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে।

লোহাগড়া থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) সৈয়দ আশিকুর রহমান বলেন, গ্রাম্য আধিপত্য বিস্তার করাকে কেন্দ্র করে দুপক্ষের সংঘর্ষ ঠেকাতে যেয়ে দুবৃর্ত্তরা দুই পুলিশ কর্মকর্তাকে মারপিট করে একটি অস্ত্র ছিনিয়ে নেয়। পরে পুলিশ অভিযান চালিয়ে অস্ত্র উদ্ধার করেছে। এ ঘটনায় দোষীদের বিরুদ্ধে আইনগত ব্যবস্থা গ্রহন করা হবে ।