ই-পেপার ফটোগ্যালারি আর্কাইভ রবিবার, ১৭ অক্টোবর , ২০২১ ● ২ কার্তিক ১৪২৮

লোহাগড়ায় ক্লিনিক মালিক ও ডাক্তারের নামে থানায় মামলা

Published : Monday 19-April-2021 20:59:04 pm
এখন সময়: রবিবার, ১৭ অক্টোবর , ২০২১ ০৭:১৮:১৭ am

লোহাগড়া (নড়াইল) প্রতিনিধি : নড়াইলের   লোহাগড়া   পৌর   শহরের   সিএনবি   চৌরাস্তায়   মোর্শেদা ক্লিনিকে ও-পজেটিভ রক্তের পরিবর্তে বি-পজেটিভ রক্ত পুস করা রোগীর শারিরিক অবস্থা আশংকাজনক হয়ে পড়ায় তাকে খুলনা সিটি মেডিকেলে ভর্তি করা হয়েছে। এ ঘটনায় প্রতিকার চেয়ে রোগীর ভাই সোহেল শেখ কিøনিকের   মালিক   ও ডাক্তারকে   আসামি করে থানায় মামলা দায়ের করেছেন। 

এজাহার ও পুলিশ সুত্রে জানা গেছে, উপজেলার ইতনা ইউপির পাংখারচর গ্রামের আরকান ওরফে ওলিয়ার মোল্যার স্ত্রী আকলিমা বেগম খুশি (৪৫) কে জরায়ু টিউমার ও এপেন্ডিস অপারেশনের জন্য গত ১লা এপ্রিল   (বৃহস্পতিবার)   বিকালে   লোহাগড়ার   সিএনবি   চৌরাস্তায় মোর্শেদা ক্লিনিকে ভর্তি করে। এ সময় রোগীর স্বজনদের সাথে ক্লিনিক মালিক জাকির হোসেনের অপারেশনের জন্য ১৬,৫০০ টাকা চুক্তি   হয়।  পরের দিন  শুক্রবার সকাল ১০ টায় ডাঃ তাজরুল ইসলাম তাজের মাধ্যমে ওই রোগীকে ১ম দফায় অপারেশন করা হয়। পরে সন্ধ্যায় আবারও ২য় দফায় অপারেশন করে। অপারেশনের পর ক্লিনিক মালিক জানায় রোগীর শরীরে বি-পজেটিভ রক্তের প্রয়োজন পরে রোগীর শরীরে রক্ত পুষ করে।

রোগীর ভাই শেখ সোহেল অভিযোগ করে বলেন, “আমার বোনের শরীরে ২ বার অপারেশন করা হয়েছে এবং ও-পজেটিভ রক্তের পরিবর্তে ক্লিনিক মালিক ভুল করে বি-পজেটিভ রক্ত পুষ করার কারণে আমার বোনের শারীরিক অবস্থার আস্তে আস্তে অবনতি হয়ে পড়লে খুলনা সিটি মেডিকেলে ভর্তি করি।  অবশেষে প্রতিকার চেয়ে মালিক

জাকির হোসেন ও ডাক্তারসহ ৬ জনকে আসামি করে লোহাগড়া থানায় মামলা দায়ের করেছি। মামলা নং ২৯। তাং-১৮/০৪/২১ ইং।

অভিযুক্ত ক্লিনিক মালিক জাকির হোসেন বলেন, ক্রস ম্যাচিং এর পর বি-পজেটিভ রক্ত  দেয়া হয়েছে। আমার তত্ত্বাবধায়নে রোগীর চিকিৎসা চলছে। তবে রোগীর অবস্থা ভাল। লোহাগড়া থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) সৈয়দ আশিকুর রহমান বলেন, এ ঘটনায় রোগীর ভাই   সোহেল   রানা   ৬   জনকে   আসামি করে থানায় মামলা দায়ের করেছেন। আসামি আটকের চেষ্টা চলছে।