ই-পেপার ফটোগ্যালারি আর্কাইভ শুক্রবার, ১৪ মে , ২০২১ ● ৩১ বৈশাখ ১৪২৮

যশোরে বাবা হত্যায় নয়নের স্বীকারোক্তি

Published : Sunday 11-April-2021 21:16:16 pm
এখন সময়: শুক্রবার, ১৪ মে , ২০২১ ১৩:৫১:৩২ pm

নিজস্ব প্রতিবেদক : যশোরে বাবাকে হত্যার অভিযোগে আটক ছেলে জসিম উদ্দিন নয়ন আদালতে স্বীকারোক্তিমূলক জবানবন্দি দিয়েছে। রোববার যশোরের জুডিসিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট মো. সাইফুদ্দীন হোসাইনের কাছে স্বীকারোক্তিমূলক জবানবন্দি দেয়ার পর বিচারক ১৬৪ ধারায় তা রেকর্ড করেন। নয়ন যশোর সদর উপজেলার বসুন্দিয়া গ্রামের মৃত সরোয়ার হোসেনের ছেলে।

মামলা তদন্তকারী কর্মকর্তা কোতয়ালি থানার এসআই জাকির হোসেন জানিয়েছেন, নয়ন একাই এই হত্যার সাথে জড়িত। ঘটনার দিন অর্থাৎ ৯ এপ্রিল রাত ১১টার দিকে তার পিতা বাড়িতে আসেন এবং সাংসারিক বিষয় নিয়ে তার মা হাসিনা বেগমের সাথে তর্কবিতর্ক জুড়ে দেয়। এরপর এক পর্যায়ে তার মাকে মারতে থাকে। সে সময় তার মা বাঁচার জন্য চিৎকার দিলে সে ঘরের মধ্যে যায় এবং মারতে বাধা দেয়। কিন্তু না শুনলে রেগে এবং মাকে বাঁচাতে দরজার পাশে রাখা ডাসা দিয়ে তার পিতার মাথায় এবং শরীরের বিভিন্ন স্থানে মারপিট করে ঘর থেকে বেরিয়ে যায়। সে সময় তার পিতা সরোয়ার হোসেন মারাত্মক জখম হয়। পরে তাকে যশোর জেনারেল হাসপাতালে নেয়া হয়। সেখানে অবস্থার অবনতি হলে তাকে খুলনা গাজী মেডিকেল হাসপাতালে নেয়া হলে রাতে তিনি মারা যান।

তবে এলাকার একটি সূত্র জানিয়েছে, সরোয়ার হোসেন বসুন্দিয়া এলাকার একটি দোকানের কর্মচারী। কিছুদিন আগে তিনি রূপদিয়া এলাকায় মোমেনা বেগম নামে এক নারীকে দ্বিতীয় বিয়ে করেন। এ নিয়ে সংসারে ব্যাপক হট্টোগোল হয়। এক পর্যায়ে মোমেনাকে তিনি তালাক দিতে বাধ্য হন। তবে তার প্রথম স্ত্রী গোপনে খোঁজ নিয়ে জানতে পারেন তার স্বামী সরোয়ার ফের মোমেনার সাথে যোগাযোগ রাখার চেষ্টা করছে। এ নিয়ে প্রায় সময় তাদের মধ্যে ঝগড়া হয়। ৯ এপ্রিল রাতে সরোয়ার বাড়ি ফিরলে এ নিয়ে তার স্ত্রী হাসিনার সাথে কথাকাটাকাটি হয়। এক পর্যায়ে হাসিনাকে মারপিট করে। সে সময় তার ছেলে নয়ন ঘুমিয়ে ছিলো। ওই রাতে ঘুমন্ত নয়নকে ডেকে তোলে তার মা হাসিনা এবং মারপিটের কথা নালিশ করে। তখন নয়ন রেগে গিয়ে দরজার পাশে রাখা ডাসা দিয়ে তার পিতার মাথায় আঘাত করলে তিনি মারাত্মক জখম হন। পরে মারা যান।

 



আরও খবর