ই-পেপার ফটোগ্যালারি আর্কাইভ রবিবার, ১৭ অক্টোবর , ২০২১ ● ২ কার্তিক ১৪২৮

ডিপ্লোমা ইঞ্জিনিয়ারদের মানববন্ধন ও সাংবাদিক সম্মেলন

Published : Wednesday 15-September-2021 21:54:11 pm
এখন সময়: রবিবার, ১৭ অক্টোবর , ২০২১ ১৮:১৯:৫৪ pm

নিজস্ব প্রতিবেদক: ডিপ্লোমা ইঞ্জিনিয়ারিং শিক্ষা কোর্সের মেয়াদ ৪ বছর থেকে ৩ বছরে হ্রাসের যে আত্মঘাতি উদ্যোগ শিক্ষা মন্ত্রণালয় নিয়েছে তার নিন্দা জানিয়েছেন ডিপ্লোমা ইঞ্জিনিয়ার নেতৃবৃন্দ। বুধবার দুপুরে প্রেসক্লাব যশোরে বাংলাদেশ ডিপ্লোমা ইঞ্জিনিয়ারিং ছাত্র শিক্ষক পেশাজীবী সংগ্রাম পরিষদ আয়োজিত সংবাদ সম্মেলনে এ নিন্দা ও প্রতিবাদ জানানো হয়। একইসাথে সংবাদ সম্মেলন থেকে চার দফা দাবি জানানো হয়।

সাংবাদিক সম্মেলনে বলা হয়, দীর্ঘ আন্দোলনের পরেও সেই উদ্যোগ থেকে সরে না আসায় আমরা হতবাক হয়েছি। এজন্য আমরা চার দফা দাবি জানাচ্ছি।

দাবিগুলোর মধ্যে রয়েছে একাধিক জাতীয় কমিটির সুপারিশের ভিত্তিতে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা অনুমোদিত চলমান ৪ বছর মেয়াদি ডিপ্লোমা ইঞ্জিনিয়ারিং কোর্স বহাল এবং ৪র্থ শিল্প বিপ্লবের চ্যালেঞ্জ মোকাবিলায় এই কোর্স আধুনিকায়নে প্রয়োজনীয় পদক্ষেপ গ্রহণ করতে হবে।

প্রধানমন্ত্রীর ২০১৮ সালের সদয় নির্দেশনা ও সরকারের আন্তঃমন্ত্রণালয় কমিটির সুপারিশের আলোকে বিএনবিসি-২০২০ এর জনস্বার্থবিরোধী সংজ্ঞা ও ধারা-উপধারা সংশোধন এবং আন্তঃমন্ত্রণালয় কমিটির সুপারিশের আলোকে ঢাকা ইমারত নির্মাণ বিধিমালা ২০০৮ সংশোধনপূর্বক গেজেট প্রকাশ করতে হবে। প্রধানমন্ত্রীর প্রতিশ্রæতি অনুযায়ী ডিপ্লোমা ইঞ্জিনিয়ারদের স্পেশাল ইনক্রিমেন্ট প্রদান, পদোন্নতির কোটা ৫০% এ উন্নীতকরণ, সরকারি, আধা সরকারি, স্বায়ত্বশাসিত সংস্থা, পেট্রোবাংলা কর্পোরেশন ও বিদ্যুৎ বিভাগের বিভিন্ন কোম্পানিতে ডিগ্রি ও ডিপ্লোমা ইঞ্জিনিয়ার অনুপাত ১:৫ রেখে জনকল্যাণে অর্গানোগ্রাম প্রণয়ন, সকল বিদ্যুৎ কোম্পানিতে জ্যেষ্ঠতার ভিত্তিতে পদোন্নতি প্রদানে সংশ্লিষ্ট মন্ত্রণালয় থেকে প্রজ্ঞাপন জারি করা, প্রাইভেট সেক্টরে কর্মরত ডিপ্লোমা ইঞ্জিনিয়ারদের ন্যুনতম বেতন নির্ধারণ ও পদবি প্রদান এবং শুধু চাকুরির উপর নির্ভরশীলতা হ্রাস করতে উদ্যোক্তা হিসেবে গড়ে তুলতে সরকারি সহযোগিতা প্রদান করতে হবে।

পলিটেকনিক ইনস্টিটিউট ও টিভিইটি প্রতিষ্ঠানসসমূহের শিক্ষক স্বল্পতা, শ্রেণীকক্ষ, ল্যাব, ওয়ার্কসপ সংকটসহ শিক্ষকদের পদোন্নতি ও শিক্ষক-কর্মচারীদের দ্বিতীয় শিফট ও দুর্যোগকালিন সময়ে দায়িত্ব পালনের সম্মানি প্রদানসহ ২৯টি ইমার্জিং টেকনোলজির বেকার ডিপ্লোমা গ্রাজুয়েটদের কর্মসংস্থানের প্রয়োজনীয় নির্দেশনা প্রদান করতে হবে।

সাংবাদিক সম্মেলনে বলা হয় বঙ্গবন্ধু’র শিক্ষাদর্শনের আলোকে মানবসম্পদ উন্নয়নে যখন প্রধানমন্ত্রী নানাবিদ পরিকল্পনা নিয়ে কারিগরি ও বৃত্তিমূলক শিক্ষা প্রসারে অব্যাহতভাবে কাজ করে যাচ্ছেন, সেখানে কেন শিক্ষা মন্ত্রণালয় এ ধরনের আত্মঘাতি পথে হাঁটছে, তা বোধগম্য নয়। শিক্ষা মন্ত্রণালয়ের এই আত্মঘাতি উদ্যোগ বৈশ্বিক কর্মবাজারের চ্যালেঞ্জ মোকাবেলায় অন্তরায় উল্লেখ করে বলা হয় এটি দেশ ও জাতিকে পেছনে ঠেলে দেবে। চলমান উন্নয়নকে বাধাগ্রস্ত করবে এবং উন্নয়ন পরিকল্পনা এক সময় মুখ থুবড়ে পড়বে। নেতৃবৃন্দ শিক্ষা মন্ত্রণালয়ের এ ধরনের আত্মঘাতি উদ্যোগ বন্ধে সরাসরি প্রধানমন্ত্রীর হস্তক্ষেপ কামনা করেন।

কেন্দ্রীয় কর্মসূচির অংশ হিসেবে সংবাদ সম্মেলনে লিখিত বক্তব্য পাঠ করেন সংগ্রাম পরিষদের যশোর জেলা শাখার আহŸায়ক রুহুল আমিন। উপস্থিত ছিলেন  আইডিইবি যশোর জেলা শাখার সহসভাপতি শহিদুল হক বাদল, সাধারণ সম্পাদক নূরুল ইসলাম, সংগ্রাম পরিষদের সদস্য সচিব তরিকুল ইসলাম প্রমুখ।

এর আগে প্রেসক্লাব যশোরের সামনে মানববন্ধন কর্মসূচি পালিত হয়। আধাঘন্টাব্যাপী চলা এ মানববন্ধনে অর্ধশতাধিক ডিপ্লোমা ইঞ্জিনিয়ার অংশ নেন। সঞ্চালনা করেন আইডিইবি যশোর জেলা শাখার সাধারণ সম্পাদক নূরুল ইসলাম।

প্রতিবাদ এ কর্মসূচি শেষে মৌন মিছিল করে জেলা প্রশাসক মো: তমিজুল ইসলাম খানের মাধ্যমে প্রধানমন্ত্রী বরাবর স্মারকলিপি প্রদান করেন নেতৃবৃন্দ।