ই-পেপার ফটোগ্যালারি আর্কাইভ মঙ্গলবার, ২৬ অক্টোবর , ২০২১ ● ১১ কার্তিক ১৪২৮

আশাশুনি থানা গ্রামে গ্রামে পাহারা দিচ্ছেন ওসি নিজেই

Published : Saturday 24-April-2021 20:31:57 pm
এখন সময়: মঙ্গলবার, ২৬ অক্টোবর , ২০২১ ১৫:৪৪:৫০ pm

বি এম আলাউদ্দীন, আশাশুনি : সাতক্ষীরার আশাশুনি থানার অফিসার ইনচার্জ মোহাম্মাদ গোলাম কবির রাত হলেই নিজেই পাহারা দিয়ে বেড়াচ্ছেন উপজেলার বিভিন্ন গ্রাম।

২০২০ সালের ০৭ জুন থানায় যোগদানের পর থেকেই পাল্টে গেচ্ছে আশাশুনি থানার দৃশ্যপট। তিনি যোগদানের পর পরই মানবিক পুলিশিং সেবা প্রদানের প্রতিশ্র“তি দেন। সেই কথা অনুযায়ী কোনো প্রকার অর্থ ছাড়াই সাধারণ মানুষকে পুলিশিং সেবা প্রদানের কাজ তিনি এখনো অব্যাহত রেখেছেন। মাদক, জুয়া, সন্ত্রাস, জঙ্গিবাদ, চোরাচালান, ইভটিজিং, নারী ও শিশু নির্যাতন, পারিবারিক সহিংসতা, বাল্য বিবাহ প্রতিরোধের পাশাপাশি থানাকে সু-সজ্জিত মডেল ও মানবিক থানা হিসেবে গড়েছেন।

জানাগেছে, থানায় সেবা নিতে আসা মানুষেরা সরাসরি ওসির সাথে দেখা করতে পারেন এবং তাদের সমস্যার কথা জানাতে পারেন। এছাড়াও থানা ভবন সংস্কার, বাউন্ডারীর প্রচীরের পাশদিয়ে থানার ভিতরের চতুর্দিকে চওড়া ঢালাই রাস্তা নির্মাণ, থানা চত্বরে ফুলের বাগান, সবজির বাগান লাগিয়ে   সৌন্দর্য বৃদ্ধি, গোলঘরটি টাইলস বসিয়ে দৃষ্টিনন্দন করা, প্রাচীর সংস্কার, থানার ভিতরের পুকুর নালা পরিষ্কার করে পুকুরে মাছ চাষ করা, থানা ভবনের ব্যারাকে পর্যাপ্ত লাইট ব্যবস্থা, গাড়ির গ্যারেজ নির্মাণ, ওয়াইফাই সংযোগ ও গোটা থানা এলাকা সিসি ক্যামেরার আওতায় আনা হয়েছে। এছাড়া প্রথম ধাপে করোনা কালীন সময় নিজের জীবন বাজি রেখে থানা এলাকায় জন সচেতনাতা মূলক কর্মকাণ্ড, বিদেশ ও ইটভাটা থেকে ফেরা শ্রমিকদের কোয়ারেন্টাইন নিশ্চিত করণ, করোনা ভাইরাসের ঘরবন্দি মানুষদের খাদ্য সরবরাহ, মাস্ক বিতরণ, করোনায় মৃত ব্যক্তিদের লাশ দাফন, করোনার হাত থেকে বাঁচাতে রাস্তায় নেমে সাধারণ মানুষকে সচেতন করেছেন।

উপজেলার শোভনালী ইউনিয়নের চাঞ্চল্যকর চন্দ্র শেখর হত্যার ২৪ ঘন্টার ভিতরে তথ্য উদঘাটন করে আসামিকে আটক, কুল্যার ডাকাতি হওয়ার এক দিনের মধ্যে তথ্য উদঘাটন করে আসামি আটক করা, বড়দল ইউনিয়নের গোয়ালডাঙ্গা বাজারের চায়না বাংলা শোরুম থেকে চুরি হওয়ার পাঁচ ঘণ্টার মধ্যে আসামি আটক করাসহ ক্যান্সার আক্রান্ত নাছিমা খাতুনের বাড়িতে গিয়ে সাহায্যের হাত বাড়িয়ে এবং তাকে চিকিৎসার জন্য ফান্ড তৈরি করে দিয়ে দৃষ্টান্ত স্থাপন করেছেন তিনি। তাছাড়া ঘূর্ণিঝড় বুলবুল ও আম্পান মোকাবেলায় জন সচেতনাতামূলক কর্মকাণ্ডে বিশেষ ভূমিকা রেখে আধুনিক ও মডেল থানা গড়ার লক্ষ্যে আইন-শৃঙ্খলা বাস্তবায়নে করতে সক্ষম হয়েছেন তিনি। চুরি, ডাকাতি ছিনতাই প্রতিরোধে এলাকাবাসীর সহযোগীতায় বিভিন্ন মেন সড়কের মোড়ে বসিয়েছেন পাহারা। যার ফলে অপরাধ প্রবনতা অনেকাংশে কমে এসেছে। ইতিমধ্যে তিনি অপরাধ দমন, চুরি ডাকাতি প্রতিরোধ এবং মাদক উদ্ধারেও বেশ সফলতা অর্জন করতে সক্ষম হয়েছেন। বিশেষ করে চলমান লকডাউন কার্যকর এবং আশাশুনি থানার বিভিন্ন এলাকায় ঘুরে ঘুরে জনসাধারণকে সচেতন করাসহ করোনা প্রতিরোধ সামগ্রী বিতরণ করে তিনি এলাকায় করোনা যোদ্ধা হিসেবে সাধারণ মানুষের কাছে খ্যাতি পেয়েছেন।



আরও খবর