ই-পেপার ফটোগ্যালারি আর্কাইভ শুক্রবার, ২২ অক্টোবর , ২০২১ ● ৭ কার্তিক ১৪২৮

মণিরামপুরের মাসুম বিল্লাহ হত্যা মামলায় মেহেদীর জবানবন্দি

Published : Thursday 12-August-2021 21:59:47 pm
এখন সময়: শুক্রবার, ২২ অক্টোবর , ২০২১ ০৯:৩০:৩৫ am

নিজস্ব প্রতিবেদক : মণিরামপুরের মাসুম বিল্লাহ হত্যা মামলায় আটক মেহেদী হাসান রাসেল আদালতে স্বীকারোক্তি জবানবন্দি দিয়েছে। চুরি করতে গিয়ে ধরা পড়ার পর গ্রামের লোকজন তাকে পিটিয়ে হত্যা করেছে বলে জানিয়েছে রাসেল। বৃহস্পতিবার জুডিসিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট আদালতের বিচারক মাহাদী হাসান আসামির এ জবানবন্দি গ্রহণ শেষে কারাগারে পাঠানোর আদেশ দিয়েছেন। মেহেদী হাসান রাসেল যশোর ঝিকরগাছার বেনেয়ালী গ্রামের রুহুল আমিনের ছেলে।

মেহেদী হাসান জানিয়েছে, চলতি বছরের ২১ মে দিবাগত গভীর রাতে প্রতিবেশী হাসানের বাড়ি চিৎকার শুনে সে তার বাড়িতে যায়। হাসান ও তার স্ত্রী এক যুবককে ধরে চোর চিৎকার করছিল। এ সময় সেও ওই যুবককে জড়িয়ে ধরে রাখে। এরমধ্যে গ্রামের অনেকে হাসানের বাড়িতে এসে ওই যুবককে মারপিট করতে থাকে। সে তাকে একটি চড় দিয়ে স্থানীয় মেম্বরকে ডাকতে যায়। মেম্বর না আসায় ফিরে দেখে আটক যুবক মাটিতে পড়ে আছে তার নাক-মুখ দিয়ে রক্ত পড়ছে। এর মধ্যে সে বাড়িতে চলে যায়। পরে হাসান একটি ভ্যান এনে ওই যুবককে উঠিয়ে নিয়ে যাওয়ার জন্য তাকে ডেকে ছিল। কিন্তু সে যায়নি। এ সময় আটক হাসান আলী, শহিদুলসহ অনেকে জড়িত বলে জানিয়েছে মেহেদী হাসান রাসেল।

মামলার অভিযোগে জানা গেছে, মাসুম বিল্লাহ মণিরামপুরের মাহমুদকাঠি গ্রামের মোতালেব জমাদ্দারের ছেলে। সে ঢাকায় কাজ করতো। চলতি বছরের ৭ মে ঢাকা থেকে বাড়ি এসে কৃষি কাজ করত। ২১ মে বিকেলে মাসুম বিল্লাহ বেনাপোলের কাগজপুকুর গ্রামে বোনের বাড়ি বেড়ানোর উদ্দ্যেশে বের হয়। ওই দিন গভীর রাতে স্বজনরা জানতে পারে যশোর-বেনাপোল সড়কের পাশে মাসুম বিল্লাহ মৃত অবস্থায় পড়ে আছে। এ সংবাদের ভিত্তিতে স্বজনরা ঘটনাস্থলে গিয়ে মাসুম বিল্লাহর লাশ শনাক্ত করে। এ ব্যাপারে নিহতের পিতা মোতালেব জমাদ্দার বাদী হয়ে হাসান আলী ও তার স্ত্রীর নাম উল্লেখসহ অপরিচিত ব্যক্তিদের আসামি করে ঝিরগাছার থানায় হত্যা মামলা করেন। এ মামলার তদন্তকারী কর্মকর্তা এসআই আনিছুর রহমান হত্যার সাথে জড়িত থাকার অভিযোগে হাসান আলীকে আটক করে আদালতে সোপর্দ করেন। তার দেয়া স্বীকারোক্তিতে মেহেদী হাসান রাসেলকে আটক করেন তিনি। বৃহস্পতিবার আটক রাসেলকে আদালতে সোপর্দ করলে হত্যার সাথে জড়িত থাকার কথা স্বীকার করে ওই জবানবন্দি দিয়েছে।

 



সর্বশেষ সংবাদ
আরও খবর