ই-পেপার ফটোগ্যালারি আর্কাইভ বুধবার, ২৭ অক্টোবর , ২০২১ ● ১২ কার্তিক ১৪২৮

বেনাপোলে পদ্মা পয়েন্ট আগুনে ভস্মিভূত

Published : Sunday 05-September-2021 21:47:59 pm
এখন সময়: বুধবার, ২৭ অক্টোবর , ২০২১ ২২:৪৫:০৮ pm

# শার্শা উপজেলা চেয়ারম্যানসহ নেতৃবৃন্দের পরিদর্শন

শেখ কাজিম উদ্দিন, বেনাপোল : বেনাপোলের পদ্মা পয়েন্টে আগুন লেগে মোটা অংকের ক্ষতি হয়েছে। আগুনে ভষ্মিভূত হয়ে গেছে পদ্মা ট্রেডিং করপোরেশন ও ওয়েলকিন নামক দুইটি কাস্টম ক্লিয়ারিং এন্ড ফরওয়ার্ডিং এজেন্টের প্রয়োজনীয় ফাইল ও আসবাবপত্র।

শনিবার রাত ৯টার সময় বেনাপোল বিজিবি ক্যাম্পের সামনে অবস্থিত পদ্মা পয়েন্টে আগুন লাগলে খবর পেয়ে দীর্ঘ ১ঘন্টা চেষ্টার পর আগুণ নিয়ন্ত্রণে নিয়ে আসা হয় বলে জানান বেনাপোল ফায়ার সার্ভিসের কর্মকর্তা তপন কুমার দেবনাথ।

রবিবার বেলা ১১ টায় শার্শা উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি ও উপজেলা চেয়ারম্যান বীর মুক্তিযোদ্ধা সিরাজুল হক মঞ্জু বেনাপোল পদ্মা পয়েন্ট পরিদর্শন করেছেন। পরিদর্শন করেন বেনাপোল পৌর আওয়ামী লীগের ভারপ্রাপ্ত সভাপতি আলহাজ এনামুল হক মুকুল, সাধারণ সম্পাদক আলহাজ নাসির উদ্দিন, শার্শা উপজেলা যুবলীগের সভাপতি ও যশোর জেলা পরিষদের সদস্য অহিদুজ্জামান অহিদ, বেনাপোল পৌর কাউন্সিলর ও যুবলীগের আহবায়ক আহাদুজ্জামান বকুল, পৌর স্বেচ্ছাসেবকলীগের সভাপতি জুলফিকার আলী মন্টু, সাধারণ সম্পাদক কামাল হোসেনসহ স্থানীয় আওয়ামী লীগের সকল সহযোগী সংগঠনের নেতাকর্মীরা।

এ সময় সাথে ছিলেন শার্শার এমপি আলহাজ শেখ আফিল উদ্দিনের বিশেষ সহকারী আসাদুজ্জামান আসাদ, শার্শা উপজেলা ছাত্রলীগের সভাপতি আব্দুর রহিম সরদার, সাধারণ সম্পাদক ইকবল হোসেন রাসেল, যুগ্ম সম্পাদক হাসনাইন খুরশিদ মিলন, সাংগঠনিক সম্পাদক আল আমিন রুবেল প্রমুখ। 

বেনাপোল কাস্টম ক্লিয়ারিং এন্ড ফরওয়ার্ডিং এজেন্ট এসোসিয়েশনের সিনিয়র সহসভাপতি ও শার্শা উপজেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক তথা বেনাপোলের স্বনামধন্য ব্যবসা প্রতিষ্ঠান পদ্মা ট্রেডিং করপোরেশন নামক সিএন্ডএফ এজেন্টের সত্ত¡াধিকারী আলহাজ নুরুজ্জামান ও সহোদর ওয়েলকিন সিএন্ডএফ এজেন্টের সত্ত¡াধিকারী আসাদুজ্জামান আসাদ দীর্ঘদিন ধরে নিজস্ব এই বিল্ডিং পদ্মা পয়েন্টে তাদের সিএন্ডএফ এবং আমদানি-রপ্তানি বাণিজ্য পরিচালনা করে আসছেন। এখানে অফিসিয়াল কার্যক্রম পরিচালনার মাধ্যমে দেশের স্বনামধন্য বিভিন্ন শিল্প প্রতিষ্ঠানের সাথে তারা সুনামের সাথে কাজ করে আসছিলেন। হঠাৎ শনিবার রাতে আগুন লেগে কাস্টমস সংশ্লিষ্ট আমদানি রপ্তানি কাজে ব্যবহৃত ব্যাংক ডকুমেন্টস, কাস্টমস ক্লিয়ারিং এন্ড ফরওয়ার্ডিং এর কাজে ব্যবহৃত অরিজিনিনাল ডকুমেন্টস, কাগজপত্র, বন্ড লাইসেন্সসহ সকল প্রয়োজনীয় কাগজপত্র আগুনে পুড়ে গেছে। সেসাথে অফিসিয়াল আসবাবপত্র ও পদ্মা পয়েন্ট ভবন আগুনে পুড়ে ব্যাপকভাবে আর্থিক ক্ষতির সম্মুখীন হয়েছে।

এ বিষয়ে পদ্মা পয়েন্টের স্বত্ত¡াধিকারী আলহাজ নুরুজ্জামানের ছোট ভাই তথা ওয়েলকিন সিএন্ডএফ এজেন্টের স্বত্ত¡াধিকারী আসাদুজ্জামান আসাদ ও আলহাজ নুরুজ্জামান অসুস্থ থাকায় পক্ষে ইরতেজা আহমেদ বেনাপোল পোর্ট থানায় পৃথক দুইটি সাধারণ ডায়েরি করেছেন।

এ বিষয়ে আসাদুজ্জামান আসাদ বলেন, শনিবার রাতে আগুন লেগে তাদের মালিকানাধীন ভবন বেনাপোল পদ্মা পয়েন্ট আগুণে পুড়ে ভষ্মিভূত হয়েগেছে। পুড়ে ছাই হয়ে গেছে তাদের দু’ভাইয়ের মালিকানাধীন পদ্মা ট্রেডিং করপোরেশন ও ওয়েলকিন নামক সিএন্ডএফ প্রতিষ্ঠানের আমদানি রপ্তানি কাজে ব্যবহৃত বিভিন্ন কোম্পানীর অরিজিনাল ডকুমেন্টস ও বন্ড লাইসেন্সসহ সকল প্রয়োজনীয় ফাইলপত্র। সেসাথে পুড়ে একাকার হয়ে গেছে অফিসের ডেকোরেশন, এসিসহ সমস্ত আসবাবপত্র। তাতে তার মালিকানাধীন ওয়েলকিন অফিসের ৫ লক্ষ টাকার আসবাবপত্রসহ সহোদর নুরুজ্জামানের অফিস, কনফারেন্স রুম, এসি, ডেকোরেশনসহ ৫০ লক্ষাধিক টাকার ক্ষতিসাধন হয়েছে।

এ বিষয়ে বেনাপোল ফায়ার সার্ভিস স্টেশনের অফিসার ইনচার্জ তপন কুমার দেবনাথ বলেন শনিবার রাত ৮টার দিকে পদ্মা পয়েন্টে আগুন লাগার খবর পেয়ে আমরা সেখানে যান। বন্ধের দিন হওয়ায় এবং অফিসে কোনও মানুষ না থাকায় আগুনের লেলিহান শিখা অল্প সময়ের মধ্যে সেখানে তাণ্ডব চালিয়ে দুটি সিএন্ডএফ অফিসের আসবাবপত্র ও ফাইলপত্র পুড়িয়ে ভষ্মিভূত করে ফেলে। দীর্ঘ এক ঘন্টার চেষ্টার পর আমরা আগুন নিয়ন্ত্রণে নিয়ে আসি। প্রাথমিকভাবে ধারণা করা হচ্ছে বিদ্যুতের সর্টসার্কিট থেকে এ আগুণের সুত্রপাত ঘটতে পারে। তবে কোথা থেকে আগুনের উৎস তা খুঁজে বের করার চেষ্টা করা হচ্ছে।

 



আরও খবর