ই-পেপার ফটোগ্যালারি আর্কাইভ বুধবার, ২৭ অক্টোবর , ২০২১ ● ১২ কার্তিক ১৪২৮

নড়াইলে দুইদল গ্রামবাসীর দীর্ঘদিনের দ্বন্দ্ব-সংঘাতের অবসান করলেন পুলিশ সুপার

Published : Saturday 07-August-2021 21:13:41 pm
এখন সময়: বুধবার, ২৭ অক্টোবর , ২০২১ ১৮:৫৩:৩৬ pm

ফরহাদ খান ও মাহফুজুল ইসলাম মুন্নু, নড়াইল : নড়াইলের লোহাগড়া উপজেলার গন্ডব গ্রামে দুইপক্ষের দীর্ঘদিনের দ্বন্দ্ব-সংঘাতের অবসান করলেন পুলিশ সুপার প্রবীর কুমার রায় পিপিএম (বার)। শুক্রবার (৬ আগস্ট) বিকেলে কাশিপুর ইউনিয়ন পরিষদ চত্বরে দুই দল গ্রামবাসীর উপস্থিতিতে এই শান্তি সমাবেশ হয়।

লোহাগড়া থানার ওসি শেখ আবু হেনা মিলনের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে আরো উপস্থিত ছিলেন-অতিরিক্ত পুলিশ সুপার তানজিলা সিদ্দিকা, লোহাগড়া উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান সিকদার আব্দুল হান্নান রুনু, উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি মুন্সী আলাউদ্দিন, সাধারণ সম্পাদক সৈয়দ মশিয়ূর রহমান, সিনিয়র সহ-সভাপতি ফয়জুল হক রোম, মুক্তিযোদ্ধা গোলাম মোস্তফা, লোহাগড়ার থানার পরিদর্শক (তদন্ত) হরিদাস রায়, কাশিপুর ইউনিয়ন পরিষদ চেয়ারম্যান মতিয়ার রহমান, লক্ষèীপাশা ইউনিয়ন পরিষদ চেয়ারম্যান কাজী বনি আমিন, আ’লীগ নেতা শেখ শিহানুক রহমান, আজিজুর রহমান আর্জু, গন্ডব গ্রামের মাতবর সুলতান মাহমুদ বিপ্লব ও মিরাজ মোল্যা, ছলেমান মেম্বরসহ দুইপক্ষের সমর্থকেরা। 

অনুষ্ঠানে দেশি অস্ত্র ঢাল-সড়কি জমা দিয়ে দুইপক্ষের লোকজন আর দ্বন্দ্ব-সংঘাতে জড়াবেন না মর্মে পুলিশ সুপারের কাছে অঙ্গীকার করেন।

এলাকাবাসী জানান, দীর্ঘদিন ধরে নড়াইলের গন্ডব গ্রামে সুলতান মাহমুদ বিপ্লব এবং মিরাজ মোল্যার সমর্থকদের মধ্যে দ্বন্দ্ব-সংঘাত চলে আসছে। এরই ধারাবাহিকতায় ২০২০ সালের ১০ জুন প্রতিপক্ষের হামলায় মিরাজ মোল্যা গ্রুপের তিনজন নিহত হন। নিহতরা হলেন-চাচা মোকতার মোল্যা (৬০) ও ভাতিজা আমিনুর রহমান হাবিল (৫৫) এবং রফিকুল ইসলাম (৩০)। এদের বাড়ি গন্ডব গ্রামে। এ হামলায় অন্তত ১৫ জন আহত হয়েছেন।

এই হত্যা মামলার আসামিরা জামিনে এসে আবারও মারামারির প্রস্তুতি নিচ্ছেন বলে অভিযোগ করেন প্রতিপক্ষরা। এ খবর পেয়ে দুইপক্ষের মাতবরসহ তাদের সমর্থকদের উপস্থিতিতে নড়াইল জেলা পুলিশ প্রশাসন দ্বন্দ্ব-সংঘাতের অবসান করল।

নড়াইলের পুলিশ সুপার প্রবীর কুমার রায় বলেন, এখন থেকে গন্ডব গ্রামে যারা আইন-শৃঙ্খলার অবনতি ঘটাবে, তাদের কঠোর হস্তে দমন করা হবে। কোনো সন্ত্রাসী কার্যকলাপ ঘটালে কাউকে ছাড় দেয়া হবে না। পুলিশ সবসময় শান্তিপ্রিয় মানুষের পাশে থাকবে।



আরও খবর