ই-পেপার ফটোগ্যালারি আর্কাইভ বুধবার, ২৭ অক্টোবর , ২০২১ ● ১১ কার্তিক ১৪২৮

একদিনে টিকা নিলেন ৫ হাজার

Published : Wednesday 25-August-2021 21:26:30 pm
এখন সময়: বুধবার, ২৭ অক্টোবর , ২০২১ ০৩:২০:২৫ am

যশোরে আরও ৬ মৃত্যু, শনাক্ত ৫০

নিজস্ব প্রতিবেদক: যশোরে করোনাভাইরাসে আক্রান্ত ও উপসর্গ নিয়ে ৬ জন মারা গেছেন। মঙ্গলবার সকাল ৮ টা থেকে  বুধবার সকাল ৮ টা পর্যন্ত যশোর ২৫০ শয্যা জেনারেল হাসপাতালের রেড জোন ও ইয়োলোজোনে চিকিৎসাধীন অবস্থায় তারা মারা যান। আর ৪২৫ টি নমুনা পরীক্ষায় ৫০ জনের করোনা শনাক্ত হয়েছে। এদিকে, বুধবার যশোর জেলা ৫ হাজার ৫৭ জন করোনার টিকা নিয়েছেন।

যশোর ২৫০ শয্যা জেনারেল হাসপাতালের আবাসিক মেডিকেল অফিসার (আরএমও) ডা. আরিফ আহমেদ জানান, মৃত ৬ জনের মধ্যে ৪ জন করোনায় আক্রান্ত ছিলেন। তারা হলেন যশোর শহরের বারান্দীপাড়ার শেখ রহিমের স্ত্রী হোসনেয়ারা বেগম (৬৫), সদর উপজেলার ডাকাতিয়া গ্রামের কেরামত আলীর ছেলে সুলতান আহমেদ (৭০), গলদা গ্রামের তরিকুল ইসলামের স্ত্রী শাহরুন বেগম (৭২) ও নড়াইলের কালিয়া চন্দ্রপুর গ্রামের তোরাব আলীর ছেলে ইমাদুল হক (৯৬)। করোনার উপসর্গ নিয়ে ইয়োলোজোনে চিকিৎসাধীন মৃত দুই জন হলেন ঝিকরগাছা উপজেলার বাঁকড়া গ্রামের একসের আলীর  ছেলে আব্দুর রাজ্জাক (৭০) ও চুয়াডাঙ্গার জীবননগর উপজেলার শাকাহ গ্রামের জয়নালের ছেলে আসাদুল ইসলাম (৫৩)।

সিভিল সার্জন অফিসের তথ্য কর্মকর্তা মেডিকেল অফিসার ডা. রেহেনেওয়াজ জানান, যশোর বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের (যবিপ্রবি) জেনোম সেন্টারে ৩১২ টি  নমুনায় ৩৮ জন ও খুলনা মেডিকেল কলেজ (খুমেক) ল্যাবে ১৬ টি নমুনা পরীক্ষায় ১ জনের করোনা শনাক্ত হয়। এছাড়া যশোর ২৫০ শয্যা জেনারেল হাসপাতালসহ বিভিন্ন উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ৯৬ জনের র‌্যাপিড এন্টিজেন পরীক্ষায় ১১ জনের শরীরে করোনার জীবাণু মিলেছে। মোট শনাক্ত ৫০ জনের মধ্যে সদর উপজেলায় ৩১ জন, অভয়নগর উপজেলায় ৬ জন, চৌগাছা উপজেলায় ৩ জন, ঝিকরগাছা উপজেলায় ৩ জন, মণিরামপুর উপজেলায় ৫ জন ও শার্শা উপজেলায় ২ জন রয়েছেন।

ডা. রেহেনেওয়াজ আরও জানান, বুধবার ৫ হাজার ৫৭ জন টিকা নিয়েছেন। এরমধ্যে চিনের সিনোফার্মের ৪ হাজার ৬২০ জন ও জাপানের এস্টাজেনেকা টিকা নিয়েছেন ৪৩৭ জন।

যশোরের সিভিল সার্জন ডা. শেখ আবু শাহীন জানান, ২৫ আগস্ট পর্যন্ত যশোর জেলায় ২০ হাজার ৭৯৭ জন করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হয়েছেন। সুস্থ হয়েছেন ১৯ হাজার ৩৪৫ জন। যশোরের বিভিন্ন হাসপাতাল ও বাড়িতে মারা গেছেন ৪৫১ জন। এছাড়া ঢাকা, খুলনা ও সাতক্ষীরার হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় ১৬ জনের মৃত্যু হয়েছে। সব মিলিয়ে জেলায় করোনায় মারা গেছেন ৪৬৭ জন।



আরও খবর